1. admin@dailyhumanrightsnews24.com : admin :
সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ০৬:৪৩ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
রাজশাহী আরএমপিতে পুলিশ চেকপোস্টে দুই পুলিশকে মারধর করেছে একজন আটক ড. সৈয়দ জামিল আহমেদ এর সাথে বিনয়বাঁশী শিল্পীগোষ্ঠীর সৌজন্য সাক্ষাৎ জগন্নাথপুরে রাতের আধাঁরে ৩ টি ট্রান্সফরমার চুরি গোপালগঞ্জের হরিদাসপুর বাস মোটরসাইকেল সংঘর্ষে নিহত- এক গুরুত্বর আহত দুই। লোহাগড়ায় নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের দায়ে ৪ জন প্রার্থী কে ভ্রাম্যমান আদালতে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা। রাজশাহীতে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের নির্মাণ কাজ শুরু মূহুর্তে জমে উঠেছে বারহাট্টার দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর নির্বাচনী লড়াই শান্তিগঞ্জে ইংরেজি প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠান-২০২৪ অনুষ্ঠিত গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় নবাগত ইউএনও শাহীনুর আক্তারের যোগদান। নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন,প্রার্থীর প্রচারণায় শিক্ষক

মনিরামপুরের ঢাকুরিয়া ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে একই রাস্তা দুই প্রকল্পে দেখিয়ে অর্থ উত্তোলনের চেষ্টার অভিযোগ।

  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ১ জুন, ২০২৩
  • ১০০ বার পঠিত

 

যশোর জেলা প্রতিনিধিঃ

যশোরের মনিরামপুর উপজেলার ঢাকুরিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আয়ূব আলী গাজী’র ও ১ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মিলন হোসেনের বিরুদ্ধে একই রাস্তা দুইটি ভিন্ন ভিন্ন প্রকল্পে ভিন্ন নাম দেখিয়ে অর্থ উত্তোলনের চেষ্টায় ব্যর্থ হয়েছেন বলে জানা গেছে, গ্রামীণ অবকাঠামো রক্ষণাবেক্ষণ (টি,আর) কর্মসূচির প্রকল্পের ১ নং ওয়ার্ডের বারপাড়া গ্রামের আছরের বাড়ীর মোড় হতে পরানের বাড়ীর অভিমুখে রাস্তা সলিং করণ, রাস্তার কাজ সম্পন্ন হওয়ায় ইতিমধ্যে উক্ত রাস্তার কাজ দেখিয়ে চেয়ারম্যান আয়ূব আলী গাজী অর্থ উত্তোলন করে নিয়েছেন, পরবর্তীতে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি (ADP) প্রকল্পের ১ নং ওয়ার্ডের বারপাড়া গ্রামের জাহাঙ্গীরের বাড়ীর মোড় হতে রাজ্জাক তরফদারের বাড়ী অভিমুখে রাস্তা সোলিং করণ, দুইটি প্রকল্পে ভিন্ন নাম ব্যবহার করা হলেও সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, একই রাস্তা একটি বাড়ী বাদ দিয়ে চেয়ারম্যান ও ১ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য কারচুপি করে ভিন্ন নাম ব্যবহার করেছেন, এ বিষয়ে স্হানীয় গন্যমান্য ব্যক্তি বর্গের সমালচনায় গনমাধ্যম কর্মিগণ সত্যতা যাচাই করার লক্ষে অন্যান্য ইউপি সদস্য ও ইউনিয়ন সচিবের কাছ থেকে তথ্য সংগ্রহ করে জানাযায়, দুইটি প্রকল্পে ভিন্ন ভিন্ন নাম থাকলে ও সরেজমিন চিত্র উল্টা, একই জায়গায় দুইটি প্রকল্প ব্যবহার করে অর্থ উত্তোলন করার চেষ্টায় ব্যর্থ হয়েছেন, জানা যায়, দুইটি প্রকল্পের সভাপতি ১ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মিলন হোসেন, এ বিষয়ে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হওয়ায় এবং সর্বজন সমালোচিত হওয়ায় চেয়ারম্যান তড়িঘড়ি করে টাকা উত্তোলনের চেষ্টা করে ব্যর্থ হন, এবিষয়ে বারপাড়া গ্রামের স্হানীয় সাধারণ জনগন বলেন, বাটপার চোর চেয়ারম্যান সাহেবকে খুব ভাল জানতাম তিনি এমন একটি কাজ করবেন ভাবতে পারিনি, এলাকার জনগণ চেয়ারম্যানের এহেন কার্যকলাপকে ধিক্কার জানিয়েছেন এলাকার সাধারণ মানুষ আরো বলেন কি করে বাটপার সরকারি টাকা মেরে খাওয়ার জন্য বিভিন্ন অপকর্ম করছেন, তিনি হুজুর মানুষ আস্ত একটা, এ বিষয়ে ইউ এন ও মহোদয় অবগত হয়ে গত ৩১ মে বিকালে সরেজমিনে তদন্ত করার জন্য প্রতিনিধি সাইফুল ইসলামকে পাঠান, উনারা ঘটনার সত্যতা পান এবং চেয়ারম্যান উক্ত রাস্তার কাজ ঘুরিয়ে অন্য রাস্তা যে রাস্তায় মানুষ চলাচল করে না এমন একটি রাস্তায় সলিং করার চেষ্টা করছিলেন তখন প্রতিনিধিগণ কাজ বন্ধ করে দেন এবং চেয়ারম্যানও ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান।

সংবাদটি শেয়ার করুন :
এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৮ দৈনিক মানবাধিকার সংবাদ
Theme Customized By Shakil IT Park