1. admin@dailyhumanrightsnews24.com : admin :
শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ০৫:৪৪ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
অপহরণকারী মানিক কে জয়পুরহাটের কাশিয়াবাড়ি থেকে গ্রেফতার ও ভিকটিম রায়তা কে উদ্ধার করেছে র‌্যাব গোপালগঞ্জে পৌর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদকের জন্ম বার্ষীকি পালন। লোহাগড়ায় ৮৫ পিচ ইয়াবাসহ তেলকাড়ার রাকিব গ্রেফতার। জগন্নাথপুরে এক শিক্ষক এর ঘুষিতে অপর শিক্ষক আহত, একজন জেল হাজতে সুনামগঞ্জ জেলার ৪০ বছর পূর্তি উদযাপন উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা অনুষ্ঠিত।  বিনয়বাঁশী শিল্পীগোষ্ঠী কর্তৃক একুশের বইমেলা পরিদর্শন জগন্নাথপুরে ফুটবল টুর্নামেন্টে “পাড়ারগাঁও সোনার বাংলা স্পোর্টিং ক্লাব” চ্যাম্পিয়ন ধর্মপাশা খলাপাড়া গ্রামের লাকি আক্তার ব্রেস্ট ক্যান্সারে আক্রান্ত রোগীর পাশে কিয়ার এন্ড  সাইন ফাউন্ডেশন।  দেওয়ানগঞ্জে ‘দৈনিক সকালের সময়’ পত্রিকার প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন পিপিএম পদক পেলেন গোপালগঞ্জের পুলিশ সুপার আল-বেলী আফিফা

রাজশাহীর পুঠিয়ায়  হাই স্কুলে‌‌ নিয়োগ বাণিজ্য করে হাতিয়ে নেওয়া হলো অর্ধকোটি টাকা শিক্ষা দপ্তরে অভিযোগ

  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ৮ জুন, ২০২৩
  • ১২৮ বার পঠিত

 

প্রতিবেদক রাজশাহী
শিবপুরহাট হাই স্কুলে‌‌ নিয়োগ বাণিজ্য করে হাতিয়ে নেওয়া হলো অর্ধকোটি টাকা শিক্ষা দপ্তরে অভিযোগ
রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার শিবপুরহাট হাই স্কুলে ৪ জন কর্মচারি নিয়োগ বাণিজ্য ও স্বজনপ্রীতির অভিযোগ উঠেছে।
এ ঘটনায় স্থানীয় লোকজন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। স্কুল সূত্রে জানা গেছে, গত (২০ মে) স্কুলের দপ্তর সহকারি আয়া, নৈশপ্রহরীসহ ৪টি পদে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। এরমধ্যে কৌশলে স্কুলের সভাপতি শফিকুল ইসলামের মেয়েকে আয়া পদে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।
লিখিত অভিযোগকারী আলম হোসেন বলেন, স্কুলের প্রধান শিক্ষক ও সভাপতির যোগসাজসে ৪জন কর্মচারি নিয়োগ দেয়া হয়। আর তারা নিয়োগ বাণিজ্য করে প্রায় অর্ধকোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। তিনি বলেন, নিয়োগের আশায় নুরজাহান নামের একজন নারী দীর্ঘ ২০ বছর স্কুলের আয়া পদে কাজ করেছেন। অথচ তাকে চাকুরি না দিয়ে রীতিমত ভুরিভোজ করে সভাপতির মেয়েকে আয়া পদে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। আর এ ঘটনার এলাকার লোকজন চরম ক্ষিপ্ত হয়েছেন ভুক্তভুগীরা। যার কারণে গত ১ জুন উপজেলা শিক্ষা দপ্তরসহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়েছে।
নাম প্রকাশ না করা শর্তে স্কুলের একজন প্রধান শিক্ষক বলেন, খাতা-কলমে স্কুলের প্রধান শিক্ষক ও সভাপতি নিয়োগ বোর্ড গঠন করেছে। আর প্রার্থী বাচাই ও নিয়োগের বিনিময় অর্থ নিয়েছেন একজন প্রভাবশালী ব্যাক্তি। তবে স্কুলে দীর্ঘদিন বিনা বেতনে একজন নারী কাজ করলেও শুধুমাত্র মোটা অংকের টাকা দিতে না পারায় তাকে নিয়োগ দেয়া হয়নি। আর এতে স্কুলের শিক্ষকদের পাশাপাশি স্থানীয় লোকজন চরম ক্ষোভ প্রকাশ করছেন।
বানেশ্বর ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়াডের মেম্বার মো: আব্দুল মালেক বলেন, প্রভাব খাটিয়ে
এলাকার একজন প্রভাবশালী আওয়ামী লীগের জনপ্রতিনিধি এখানে একজন জামায়াত শিবিরের পরিবারকে নিয়োগ দিয়েছে। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থেকে জামায়াতের পরিবারের মানুষ চাকরি পাচ্ছে। সেই চাকরি দিচ্ছে আওয়ামী লীগের জনপ্রতিনিধি এটা খুবই দুঃখজনক।
শিবপুরহাট হাই স্কুলের সভাপতি শফিকুল ইসলাম অর্থের বিনিময় কর্মচারি নিয়োগ দেয়ার বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, আমার কাছে কেউ কোনো টাকা দেয়নি। নিজের মেয়েকে আয়া পদে নিয়োগ দেয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বোর্ড তাকে যোগ্য মনে করেছেন। তাই তাকে নিয়োগ দিয়েছেন।
তবে স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা আরাবিয়া সুলতানা বলেন, নিয়োগে কোথায়ও কোনো অনিয়ম করা হয়নি। আর নিয়োগের পুরো প্রক্রিয়া করা হয়েছে বিধি মোতাবেক। আর দীর্ঘদিন বিনা বেতনে একজন নারী শ্রম দিয়েও কেনো সভাপতির মেয়েকে ওই পদে নিয়োগ দেয়া হলো, এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বিষয়টি এড়িয়ে যান।
এ ব্যাপারে উপজেলা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা লায়লা আক্তার জাহান বলেন, বিধি মেনেই নিয়োগবোর্ড সকল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছেন। এখানে কোনো অনিয়ম হয়নি। তবে লিখিত অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, একটি অভিযোগ আমরা পেয়েছি। বিষয়টি তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেয়া হবে।
সংবাদটি শেয়ার করুন :
এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৮ দৈনিক মানবাধিকার সংবাদ
Theme Customized By Shakil IT Park