1. admin@dailyhumanrightsnews24.com : admin :
শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ০৮:১০ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
র‌্যাব-৫ হাতে চারঘাটে মাদক ও অস্ত্র সহ ব্যবসায়ী গ্রেফতার বারহাট্টা উপজেলা নির্বাচনে ৪ প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত মানুষকে সর্বজনীন পেনশন স্কীমের আওতায় আনার লক্ষে জগন্নাথপুরে মতবিনিময় সভা শমশেরনগর হাসপাতালে যুক্ত হলেন ইংল্যান্ড প্রবাসী তিন সফল নারী শমশেরনগর হাসপাতালে যুক্ত হলেন ইংল্যান্ড প্রবাসী তিন সফল নারী নেত্রকোনার ৩ উপজেলাতেই নতুনরা নির্বাচিত রানীগঞ্জ -হলিকোনা সড়কের করুন দশা, জনগণের ভোগান্তি জগন্নাথপুরে প্রভাষক মাওলানা মোঃ তরিকুল ইসলাম এর যুক্তরাজ্য গমন উপলক্ষে বিদায়ী সংবর্ধনা জমে উঠেছে লংগদু উপজেলা পরিষদ নির্বাচন, প্রচারনায় ব্যস্ত প্রার্থীরা নড়াইলে পূর্বশত্রুতার জেরে নিলয় কে হত্যা,প্রধান আসামি সাকিল গ্রেফতার।

দিঘলিয়া ইউনিয়ন ট্রেড লাইসেন্সে অতিরিক্ত ফি, চরম ভোগান্তিতে জনগণ।

  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ২৫ আগস্ট, ২০২৩
  • ৬৬ বার পঠিত

মোঃ আজিজুর বিশ্বাস,স্টাফ রিপোর্টার।

নড়াইল জেলার লোহাগড়া উপজেলার ১২ টা ইউনিয়ন পরিষদের তুলনা অনুযায়ী ৮ নং দিঘলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সৈয়দ বোরহান উদ্দিন ইউনিয়ন পরিষদের ট্রেড লাইসেন্স দিতে অতিরিক্ত অর্থ আদায় করছেন ট্রেড লাইসেন্স নেওয়া ভুক্তভোগীদের দাবি চেয়ারম্যান অনেক টাকা খরচ করে নির্বাচন করেছেন সেটা তাদের উপর দিয়ে তুলে দিচ্ছেন।

অনুসন্ধানে দেখা মেলে, উপজেলার ইতনা ইউনিয়ন, কোটাকোল ইউনিয়ন,মল্লিকপুর ইউনিয়ন, লোহাগড়া ইউনিয়ন, লক্ষীপাশা ইউনিয়ন,এবং কাশিপুর ইউনিয়নের সচিব দের সাথে কথা হলে তারা এই ট্রেড লাইসেন্সের বিষয়ে বলেন সরকারি নির্ধারিত আইন ২০১৩ অনুযায়ী ২ শত টাকা থেকে ৩ শত টাকা করে নিচ্ছেন এবং তার মধ্যে ১৫% টাকা সরকারি খাদে জমা করছেন,

এদিকে দিঘলিয়া ইউনিয়ন গিয়ে দেখা মিলেছে তার অন্য কিছু এ যেন মগের মুল্লুক হয়ে গেছে,

ওই বাজারের ব্যবসায়ী তাজকিয়া এন্টারপ্রাইজ তাদের থেকে নেওয়া হয়েছে ১১ শত ৫০ টাকা, আরেক ব্যবসায়ী মেসার্স আবির ট্রেডার্স তার থেকে ও নেওয়া হয়েছে ১১ শত ৫০ টাকা, অপরদিকে তাদের অভিযোগ রয়েছে গত বছরে নেওয়া হয়েছে ৩ শত ৪৫ টাকা করে বছর না ঘুরতেই কেন তাদের উপর এই জুলুম।

একই বাজারে তালিব ট্রেডার্স তাদের থেকে নেওয়া হয়েছে ২৩ শত টাকা,

নাম প্রকাশে এবং ভিডিও বক্তব্যে অনিচ্ছুক অনেকেই বলেন এই ইউনিয়নে ৩-৪ হাজার টাকা করেও নেওয়া হচ্ছে ট্রেড লাইসেন্স দেওয়ার জন্য,যেটা সরকারি নীতিমালার বাইরে। ক্ষমতার বলে চেয়ারম্যানের এমন কর্মকান্ডে তারা নির্ভীক,
কিন্তু কি করবেন তারা জিম্মি হয়ে রয়েছেন।

এবিষয়ে উপজেলার কয়েকজন ইউপি সচিবদের সাথে কথা হলে তারা বলেন তাদের চেয়ারম্যানের নির্দেশে জনগণদের সেবা দিতে সীমিত টাকা নিয়ে ট্রেড লাইসেন্সে দিচ্ছেন, এবং জনগণের জন্য ভোগান্তি যেনো না হয় সেদিকে চেয়ারম্যানরা লক্ষ্য রাখতে বলেছেন,

এবিষয়ে দিঘলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সচিব মোঃ নুরুল ইসলাম এর সাথে মুঠোফোনে জানতে চাইলে তিনি বিভিন্ন অজুহাত দেখিয়ে বলেন অন্য সচিবরা কি করল সেটা আমার দেখার দরকার নেই আমি ২০১৬ সালের আইন অনুযায়ী ট্রেড লাইসেন্সের ফি নিচ্ছি সেখানে কোন নির্ধারণ কোন কিছু নেই,
এসময় চেয়ারম্যান বোরহান উদ্দিনের নির্দেশে তিনি ট্রেড লাইসেন্স এর টাকা নিচ্ছেন নাকি জানতে চাইছে বিভিন্ন তালবাহানা দেখিয়ে তার সাথে দেখা করতে বলে তাকে বিরক্ত না করতে বলে ফোনটি কেটে দেন।

এবিষয়ে দিঘলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সৈয়দ বোরহান উদ্দিন এর সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করে তাকে পাওয়া যায় নাই।

সংবাদটি শেয়ার করুন :
এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৮ দৈনিক মানবাধিকার সংবাদ
Theme Customized By Shakil IT Park