1. admin@dailyhumanrightsnews24.com : admin :
মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ০৬:১৯ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ধর্মপাশায় ঐতিহাসিক ৭মার্চ উদযাপন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত  ধর্মপাশায় বিনামুল্যে ৪০জন কৃষকের মধ্যে গাছের চারা,বীজ,সার বিতরণ লোহাগড়ায় প্রজেক্টের চুরির মালামাল ও ট্রাকসহ উজ্জ্বল নামে ১ জন আটক। পিকনিকের যাত্রীবাহী বাসের চাকা ফেটে শিশুসহ আহত অর্ধশতাধিক গোপালগঞ্জ কোটালীপাড়ায় সরকারি জমিতে  আলিশান বাড়ি নির্মাণের অভিযোগ।  জগন্নাথপুর-শিবগঞ্জ- বেগমপুর সড়কে কালভার্টের এ্যাপ্রোচে ধ্বস, সরাসরি যানবাহন চলাচল বন্ধ  ইবির বঙ্গবন্ধু পরিষদ শিক্ষক ইউনিটের সভাপতি ড. মাহবুবর, সম্পাদক ড. শেলিনা  ইবির ঢাকা ছাত্রকল্যাণের নেতৃত্বে সাইফ-সালমান গোপালগঞ্জে  গাছে গাছে আমের মুকুল   জগন্নাথপুরে রাস্তার ঢালাই কাজ পরিদর্শন করেছেন মেয়র আক্তারুজ্জামান

পবিপ্রবিতে পদোন্নতির লোভ দেখিয়ে নারী সহকর্মীকে কুপ্রস্তাব, অডিও ক্লিপ ফাঁস

  • আপডেট সময় : রবিবার, ২৭ আগস্ট, ২০২৩
  • ৬০ বার পঠিত

মোঃ ইলিয়াস উদ্দিন, দুমকী উপজেলা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি:
পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রমোশন ও চাকরিতে বিভিন্ন ধরনের সুযোগ-সুবিধা দেয়ার লোভ দেখিয়ে এক নারী সহকর্মীর সাথে যৌন সম্পর্ক গড়ে তোলার প্রস্তাব দিয়েছেন ডেপুটি রেজিস্ট্রার মিজানুর রহমান টমাস। বর্তমানে তিনি বিশ্ববিদ্যালয়টির সংস্থাপন শাখায় কর্মরত রয়েছেন। এ সংক্রান্ত ১৪ মিনিট ৩১ সেকেন্ডের একটি অডিও ক্লিপ প্রতিবেদকের কাছে সংরক্ষিত আছে।
অডিওতে শোনা যায়, চাকরিতে প্রমোশন ও নানা ধরনের সুযোগ সুবিধা পাইয়ে দিতে ডেপুটি রেজিস্ট্রার টমাস ওই নারী সহকর্মীকে পটুয়াখালীর একটি বাসায় নিয়ে একান্তে সময় কাটানোর প্রস্তাব দেন। একই সময় তিনি যৌন সম্পর্ক গড়ে তোলার কথা বলেন। এমন তিনি প্রচার অযোগ্য কথাবার্তার মাধ্যমে ওই নারী সহকর্মীকে রাজি করানোর চেস্টা করেন। তবে ওই নারী তার অনৈতিক প্রস্তাব নাকচ করে দেন। পরে কোন কিছুর বিনিময়ে নারী সহকর্মীকে অনৈতিক প্রস্তাবে রাজি করাতে না পেরে ওই কর্মকর্তা নিজের ক্ষমতার কথা বলে চাপ প্রয়োগ করেন। যৌন হয়রানীর শিকার পবিপ্রবি’র ওই নারী ঘটনার পুরো সত্যতা স্বীকার করে তিনি এ প্রতিবেদককে জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের সংস্থাপন শাখার ডেপুটি রেজিস্ট্রার মিজানুর রহমান টমাস প্রায় সময়ই কুপ্রস্তাব দিত। একজন মেয়ে মানুষ হওয়ায় এ নিয়ে কিছু করার ছিল না তাঁর। টমাসের সংস্থাপন শাখায় ফাইল আটকে দেয়ার আশংকায় আমেরিকায় পিএইচডি করার সুযোগ পেয়েও সেটি হাতছাড়া হয়ে যাচ্ছে তাঁর। বিষয়টি তিনি অফিসার্স এসোসিয়েশনের সভাপতিকেও জানিয়েছেন। এদিকে এ ঘটনায় বিব্রত বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনসহ চাকুরীরতরা।

নাম প্রকাশ অনিচ্ছুক একাধিক কর্মকর্তা বলেন, “এসব ঘটনার উপযুক্ত বিচার না হলে এই ক্যাম্পাস চাকরির জন্য অনুপযোগী হয়ে যাবে। নারীদের জন্য কর্মস্থলে যারা অনিরাপদ পরিবেশ তৈরী করছে তাঁদের দ্রুত আইনের আওতায় আনা উচিত। কেউ এদের শেল্টার দিলে তাঁদেরও বিচার হোক।”

এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে অভিযুক্ত ডেপুটি রেজিস্ট্রার মিজানুর রহমান টমাস বলেন,
“এ ঘটনা পুরো ষড়যন্ত্রমূলক। ডেপুটি রেজিস্ট্রার নঈম কাওছার ও আইটি সেলের ফারুক এডিটিং করে এসব ছড়াচ্ছে।”
তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করে ওই দুই কর্মকর্তা বলেন, “নিজের অপকর্ম আড়াল করতে অন্যের উপর দোষ চাপানোর চেষ্টা করছেন ডেপুটি রেজিস্ট্রার টমাস। এতে করে অপরাধ লুকিয়ে রাখা যায় না।”

পবিপ্রবি’র রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড.সন্তোষ কুমার বসু বলেন, “বিষয়টি যাচাই বাছাই করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হবে।”

সংবাদটি শেয়ার করুন :
এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৮ দৈনিক মানবাধিকার সংবাদ
Theme Customized By Shakil IT Park