1. admin@dailyhumanrightsnews24.com : admin :
বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:৪৯ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
নড়াইল সুলতান মেলা উপলক্ষে ষাঁড়ের লড়াই প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। লোহাগড়ায় গাঁজাসহ ২জন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার। জগন্নাথপুরে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় শিশু সহ ৩ জন আহত জগন্নাথপুরে সাংবাদিক শংকর রায় এর শেষকৃত্য সম্পন্ন, বিভিন্ন মহলের শোক প্রকাশ গোপালগঞ্জ জেলা পুলিশের মানবিক কর্মসূচি বাস্তবায়ন গোপালগঞ্জে নবাগত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার উখিংমের যোগদান গোপালগঞ্জের উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী গাজী মাসুদ অনারস মার্কায় টুঙ্গিপাড়াবাসীর কাছে দোয়া ও ভোট ভিক্ষা চান। গোপালগঞ্জ জেলা নির্বাচন কমিশন উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থীদের মাঝে প্রতীক ঘোষনা করেন। লোহাগড়ায় সরকারী নিয়ম-নীতি না মেনে দিঘলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান বিদেশ সফরে। জগন্নাথপুরে ওয়াশ ব্লকের নির্মাণ কাজ উদ্বোধন করলেন কাউন্সিলর কামাল হোসেন

ডোমারে সেতু আছে, নেই সংযোগ সড়ক

  • আপডেট সময় : সোমবার, ৩০ অক্টোবর, ২০২৩
  • ৪৯ বার পঠিত
হাসানুজ্জামান সিদ্দিকী হাসান  নীলফামারী প্রতিনিধি

সেতু আছে, নেই সংযোগ রাস্তা। সেতুর দুই পাশের মাটি ভরাট না থাকায় কোনো কাজেই আসছে না আর এতে করে চরম ভোগান্তিতে পড়েছে নীলফারীর ডোমার উপজেলার গোমনাতী ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের হিরিপুতি পাড়ার  মানুষ।

জানা যায়, সড়ক ও জনপথ
অধিদপ্তরের অধীনে গত ২০২১-
২০২২ অর্থ বছরে নীলফামারীর ডোমার উপজেলার গোমনাতী
ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের চিলাহাটী ও আমবাড়ী বালিকা দাখিল
মাদরাসা সড়কের কাছে ৩২ লাখ ৫২ হাজার টাকা ব্যয়ে নির্মাণ করা হয় সেতু। কিন্তু সেতু নির্মাণের পর থেকে আজ অবধি সেতুর দুই পার্শে গোড়ায়
মাটি না থাকায় অকেজো হয়ে পড়ে আছে।
অথচ ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান পূর্ণাঙ্গ কাজ না করেই প্রকল্পের অর্থ তুলে নিয়ে গেছে বলে অভিযোগ রয়েছে।
শরনিবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ডোমার উপজেলার গোমনাতী
 ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের হিরিপুতি গ্রামের চিলাহাটি সড়কের কাছে
 ৩২ লাখ ৫২ হাজার ৬৫৩ টাকা ব্যয়ে  অধিগ্রহণকৃত জমির ওপর নির্মিত হয় সেতু আর এখন তা মানুষের গলার কাটা হয়ে দাঁড়িয়েছে।
সেতু ব্যবহার করতে না পারায় গ্রামবাসী সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অবহেলাকেই দায়ী করছেন। এলাকাবাসী রহিম জানান
গত ২ বছর আগে নির্মাণ করা সেতুটিতে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান সেতুর দুই পার্শে মাটি ভরাটের কাজ শেষ না করায় পানি জমে থাকায় আবাদ করা যাচ্ছে না।
স্থানীয় ইউপি সদস্য দৃলাল হোসেন জানান গত ২ বছর আগে চিলাহাটি সড়কটি বড় করার লক্ষ্যে সরকার আমার জমি অধিগ্রহণ করে ক্ষতি পুরন না দিয়ে সেতুটি নির্মাণ করে। এদিকে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান গত ১ বছর আগে সেতুটির নির্মাণ কাজ শেষ করার পর সেতুর দুই পাশে মাটি ভরাট না করে চলে য়ায় ।কিন্তু  মাটি ভরাট ও সড়ক  হবে কিনা জানিনা। এদিকে আমার অধিগ্রহণকৃত জমির কোন টাকা আমি পাই নাই।
সংবাদটি শেয়ার করুন :
এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৮ দৈনিক মানবাধিকার সংবাদ
Theme Customized By Shakil IT Park